কানাডার অঙ্গরাজ্য কয়টি ও কি কি ?

আপনারা অনেকেই জানতে চান যে, কানাডার অঙ্গরাজ্য কয়টি। তো বর্তমান সময়ে কানাডার মধ্যে মোট ১০ টি প্রদেশ এর পাশাপাশি আরো ০৩ টি অঞ্চল আছে। 

কানাডার অঙ্গরাজ্য কয়টি ও কি কি ?

 

 

আর কানাডার মোট অঙ্গরাজ্য এর সংখ্যা প্রায় ১০ টি। আর সেই অঙ্গরাজ্য গুলোর তালিকা নিচে দেওয়া হলো। যেমন, 

 

  1. নিউফাউন্ডল্যান্ড এবং ল্যাব্রাডার, 

  2. নোভা স্কশিয়া, 

  3. অন্টারিও, 

  4. প্রিন্স এডওয়ার্ড দ্বীপ, 

  5. কেবেক, 

  6. সাসকাচুয়ান

  7. আলবার্টা, 

  8. ব্রিটিশ কলাম্বিয়া, 

  9. ম্যানিটোবা,

  10.  নিউ ব্রুনসউইক,

 

বর্তমান সময়ে কানাডায় যে সকল অঙ্গরাজ্য আছে। সেই অঙ্গরাজ্য গুলোর তালিকা উপরে উল্লেখ করা হয়েছে।

 

আর উক্ত অঙ্গরাজ্য গুলোর সমন্বয়ে কানাডা বিশ্বের অন্যতম একটি রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। 

কানাডা কত সালে স্বাধীন হয়?

বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম রাষ্ট্রের নাম হলো, কানাডা। আর এই রাষ্ট্রটি অতীত সময়ে ব্রিটিশ এর উপনিবেশ হিসেবে নিযুক্ত ছিলো।

 

কিন্তুু পরবর্তী সময়ে এই দেশটি নিজেদের কে পুরোপুরি ভাবে স্বাধীন দেশ হিসেবে পরিচিত করতে পেরেছে। 

 

তো কানাডা ১৯৮২ সালে একটি স্বাধীন দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো। আর বর্তমান সময়ে এই দেশটি অর্থনীতির দিক থেকেও অনেক উন্নত একটি রাষ্ট্রে পরিনত হয়েছে। 

বর্তমানে কানাডার মোট জনসংখ্যা কত?

কানাডার মধ্যে সর্বশেষ আদমশুমারী হয়েছে, ২০২১ সালে। আর এই আদমশুমারি তে কানাডার মোট জনসংখ্যা হলো, ৩ কোটি ৮৪ লাখ ৩৬ হাজার ৪৪৭ জন।

 

যা বর্তমান বিশ্বের মোট জনসংখ্যার দেশ হিসেবে কানাডার অবস্থান রয়েছে প্রায় ৩৭ তম। 

কানাডা কি ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীন ?

হ্যাঁ! কানাডা ব্রিটেনের কাছ থেকে সম্পূর্ণ ভাবে স্বাধীন। কেননা, কানাডা তে যে ১৯৮২ সালের সংবিধান আইন আছে।

See also  দুবাই ভিসা আজকের খবর | Dubai Visa Update

 

আর উক্ত সংবিধান এর আইন ব্রিটিশ পার্লামেন্ট এর মাধ্যমে ১৯৮২ সালের মার্চ মাসের ২৫ তারিখ অনুমোদিত হয়। 

 

আর একই বছরে অর্থ্যৎ ১৯৮২ সালের এপ্রিল মাসের ১৭ তারিখে। রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ দ্বারা কানাডা কে সম্পূর্ণ একটি স্বাধীন রাষ্ট্রের ঘোষনা করা হয়েছিলো। 

কানাডার সরকারি নাম কি?

আমরা অনেকেই কানাডার সরকারি নাম জানিনা। কেননা, এই নামটি খুব কম ব্যবহার করা হয়।

 

তো কানাডার সরকারি নাম হলো, “ডোমিনিয়ন অফ কানাডা”। এটি হলো, কানাডার আনুষ্ঠানিক শিরোনাম। 

গত ৫০ বছরে কানাডার জনসংখ্যা বৃদ্ধির হারে কি হয়েছে?

যদি আপনি কানাডার ইতিহাসের ১৯৫৭ সালের পরের কথা চিন্তা করে দেখেন। তাহলে লক্ষ্য করতে পারবেন যে, তখনকার তুলনায় বর্তমানে কানাডার জনসংখ্যা ২.৭% বৃদ্ধি পেয়েছে। 

কানাডা কত বছর ব্রিটিশ শাসনে ছিলো?

আমরা সকলেই জানি যে, কানাডা আগের দিনে বিট্রিশদের অধিনে ছিলো। আর এই সময়কাল হলো, ১৮১৫ সাল থেকে ১৯১৪ সাল পর্যন্ত। কিন্তুু পরবর্তী সময় অর্থ্যাৎ ১৯৮২ সালে কানাডা একটি স্বাধীন রাষ্ট্রে স্বীকৃতি পায়। 

কানাডা সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য 

এতক্ষনের আলোচনা থেকে আমরা কানাডা সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয় জানতে পারলাম। তো এবার আমি কানাডা সম্পর্কে আরো কিছু অজানা তথ্য শেয়ার করবো। যেমন, 

 

  1. বর্তমান সময়ে কানাডার মধ্যে মোট ০৬ টি টাইম জোন আছে। 

  2. ১৯৪৭ সালে কানাডায় (-৬৩) ডিগ্রি তাপমাত্রার রেকর্ড হয়েছিলো। 

  3. কানাডার মধ্যে থাকা অধিকাংশ শহর গুলো গোলোই প্রদেশ এর মধ্যে অবস্থিত। 

  4. এই দেশের প্রায় ৮২% মানুষ শহরে বাস করে। 

  5. বাস্কেটবল সর্বপ্রথম কানাডা থেকে আবিস্কার করা হয়। 

  6. যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার মধ্যে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় আন্তর্জাতিক সীমানা আছে। 

  7. তেল মজুদ এর দিক থেকে কানাডার অবস্থান তৃতীয়। 

  8. বিশ্বের শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে কানাডার অবস্থান ৭ম। 

  9. পৃথিবীর সমস্ত লেকের মধ্যে কানাডাতে আছে প্রায় ৬০%.

  10. এই দেশের প্রায় ৫০% মানুষের উচ্চতর কলেজ ডিগ্রি আছে। 

  11. এই দেশের মানুষের মোট আয়ের প্রায় ৪০% সরকার কে কর দিতে হয়। 

  12. ৪৫ বছর বয়সী কোনো মানুষকে কানাডায় চাকরিতে নিয়োগ দেওয়া হয়না। 

  13. বছরের প্রায় ০৮ মাস কানাডা বরফে ঢাকা থাকে। 

  14. কানাডায় মোট দুইটি সরকারি ভাষা আছে। সেগুলো হলো, ফরাসি ও ইংরেজি। 

  15. কানাডা নামটি এসেছে “কানটা” নাম থেকে। 

See also  কানাডা কোন শিল্পের জন্য বিখ্যাত?

 

উপরের তালিকা তে আপনি কানাডা সম্পর্কে বেশ কিছু অজানা তথ্য জানতে পেরেছেন। আশা করি, এই তথ্য ‍গুলো আপনার অনেক ভালো লাগবে। 

আপনার জন্য কিছুকথা

আমরা অনেকেই জানতে চাই যে, কানাডার অঙ্গরাজ্য কয়টি। তো আশা করি, আজকের আর্টিকেল থেকে কানাডার অঙ্গরাজ্য কয়টি সে সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। 

 

তো আপনি যদি এই ধরনের অজানা বিষয় গুলো সহজ ভাষায় জানতে চান। তাহলে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করবেন। 

 

ধন্যবাদ, এতক্ষন ধরে আমাদের সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *