রোমানিয়া ভিসা আপডেট নিউজ ২০২৩

বর্তমান সময়ে রোমানিয়া ভিসা আপডেট নিউজ হলো। এখন বাংলাদেশি নাগরিকরা যদি রোমানিয়া যেতে চায়। তাহলে তাদের ভিসার আবেদন ভারতের দিল্লি দূতাবাস থেকে করতে হবে। আর উক্ত ভিসা আবেদন শেষে আপনার সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে। সেই সাক্ষাৎকার এর দিন, তারিখ ও সময় আপনাকে জানিয়ে দেওয়া হবে। 

 

তবে আপনি চাইলে এই সাক্ষাৎকার রোমানিয়া ভাষায় কিংবা ইংরেজি ভাষায় দিতে পারবেন। 

গুরুত্বপূর্ন সাধারণ জ্ঞান

বলে রাখা ভালো যে, আমাদের বাংলাদেশ এর মধ্যে রোমনিয়া দুতাবাস থাকলেও। বর্তমানে তারা বাংলাদেশি নাগরিকদের ভিসা আবেদন ভারতের দিল্লি থেকে গ্রহন করছে। তবে এগুলোর পাশাপাশি আমাদের রোমানিয়া ভিসা সম্পর্কে আরো বেশ কিছু আপডেট নিউজ জেনে রাখতে হবে। যেগুলো নিচে আলোচনা করা হয়েছে। 

রোমানিয়া ভিসা আপডেট নিউজ

এখন কি রোমানিয়ার ভিসা হচ্ছে?

হুমম, অবশ্যই! বাংলাদেশের নাগরিকরা এখনও রোমনিয়া ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবে। তবে আগের দিন গুলোতে আমাদের বাংলাদেশ থেকে ভিসা আবেদন করা গেলেও। বর্তমান সময়ে ভারতের দিল্লি দুতাবাস থেকে ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। 

 

আর আপনি বিভিন্ন ধরনের ভিসার মাধ্যমে রোমানিয়া যেতে পারবেন। যেমন, ওয়ার্ক পারমিট ভিসা, ভিজিট ভিসা, শিক্ষার্থী ভিসা ইত্যাদি। তবে এগুলো ছাড়াও আরো অনেক ভিসা রয়েছে। যে গুলোর মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে রোমানিয়া যাওয়া সম্ভব।

রোমানিয়া ভিসা পেতে কতদিন সময় লাগে?

আপনার রোমানিয়া ভিসা পেতে কতদিন সময় লাগবে, সেটা আপনার ভিসার ধরন এর উপর নির্ভর করবে। তবে স্বাভাবিক ভাবে আপনার ভিসা আবেদন করার প্রায় ১৫ দিন থেকে শুরু করে পরবর্তী ৬০ দিনের মধ্যে ভিসা প্রসেসিং এর কাজ শেষ হয়ে যায়।

See also  বুলগেরিয়া কাজের ভিসা আপডেট | ভিসা খরচ, বেতন

 

আর উক্ত ভিসা আপনার হাতে পেতে ৯০ দিন থেকে ১২০ দিন পর্যন্ত সময় এর প্রয়োজন হতে পারে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে আপনার এর থেকেও বেশি সময়ের প্রয়োজন লাগতে পারে। কেননা, সেটা সম্পূর্ণ ভাবে নির্ভর করবে আপনার ভিসার ধরন এর উপর।  

বাংলাদেশ থেকে রোমানিয়া যেতে কত টাকা লাগে?

রোমানিয়া যাওয়ার ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন ভিসার জন্য ভিন্ন পরিমান টাকার প্রয়োজন হয়। তবে আপনি যদি আমাদের দেশ থেকে ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় রোমানিয়া যেতে চান। তাহলে সরকারি ভাবে গেলে আপনার খরচ হবে প্রায় ৫ লাখ থেকে ৬ লাখ টাকার মতো। 

 

কিন্তুু যদি আপনি এজেন্সির মাধ্যমে রোমানিয়া যান। তাহলে আপনার খরচ অনেক বেশি পড়বে। কারণ, এজেন্সির মাধ্যমে গেলে আপনার মোট খরচ হবে ০৮ লাখ থেকে ১০ লাখ টাকা। আবার কখনও কখনও আপনার এর থেকেও বেশি টাকা খরচ করার প্রয়োজন পড়বে।  

রোমানিয়া তে কোন কাজের চাহিদা বেশি?

আমরা সকলেই জানি যে, রোমানিয়াতে দক্ষতার উপর ভিত্তি করে কাজ প্রদান করা হয়। তো যখন আপনার নির্দিষ্ট কোনো কাজে দক্ষতা থাকবে। তখন আপনি এমন অনেক কাজ করার সুযোগ পাবেন। যে কাজ গুলোতে রোমানিয়াতে চাহিদাসম্পন্ন। 

 

আর বর্তমান সময়ে রোমানিয়া তে কোন কাজের চাহিদা আছে। সেই কাজ গুলো নিচে উল্লেখ করা হলো। যেমন, 

 

  1. স্টোরকিপার,

  2. কনস্ট্রাকশন, 

  3. সেলসম্যান,

  4. কম্পিউটার অপারেটর,

  5. দোকান বা ফ্যাক্টরির কাজ,

  6. গার্মেন্টস,

  7. ড্রাইভার,

  8. কৃষিকাজ,

  9. ক্লিনার,

  10. মেকানিক্যাল,

  11. ইলেকট্রিশিয়ান,

  12. প্রযুক্তি বিষয়ক কাজ,

 

তো যদি আপনার উপরের যেকোনো কাজে দক্ষতা থাকে। তাহলে আপনি খুব সহজে রোমানিয়া ভিসা পাবেন। কেননা, বর্তমানে রোমানিয়া তে এই কাজ গুলোর অনেক চাহিদা আছে। 

রোমানিয়া যেতে কি কি লাগে?

একটি দেশে প্রবেশ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হয়। ঠিক তেমনি ভাবে যখন আপনি বাংলাদেশ থেকে রোমানিয়া যাবেন। তখন আপনার যে সকল ডকুমেন্টস এর দরকার হবে। সেই ডকুমেন্টস গুলোর তালিকা নিচে প্রদান করা হলো। যেমন, 

See also  ওমান ই ভিসা চেক করার উপায় অনলাইন

 

  1. রোমনিয়া ভিসা আবেদন ফরম,

  2. সর্বনিন্ম ০৬ মাস মেয়াদী পাসপোর্ট,

  3. জাতীয় পরিচয়পত্র এর কপি,

  4. সদ্য তোলা ছবি,

  5. শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ কপি (প্রয়োজন অনুযায়ী),

  6. কাজের দক্ষতার সার্টিফিকেট (প্রয়োজন অনুযায়ী),

  7. পুলিশ ক্লিয়ারেন্স,

 

উপরের যে ডকুমেন্টস গুলো দেখতে পাচ্ছেন। সেগুলো হলো রোমানিয়া যাওয়ার প্রাথমিক ডকুমেন্টস। তবে এর বাইরে আরো ভিসা ও কাজের ধরন অনুযায়ী অন্যান্য ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হতে পারে। 

রোমানিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা কিভাবে পাবো?   

সত্যি বলতে বর্তমান সময়ে যদি আমাদের বাংলাদেশ থেকে কেউ রোমানিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য আবেদন করে। তাহলে তার জন্য ওয়ার্ক পারমিট ভিসা পাওয়া অনেক কষ্টকর হয়ে যাবে। কেননা, এর আগের দিন গুলোতে আমাদের বাংলাদেশ থেকে ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় অনেক মানুষ রোমানিয়া তে গিয়েছিলো। 

 

কিন্তুু নানা সমস্যার কারণে অনেক বাংলাদেশি মানুষ রোমানিয়া থেকে ফেরত এসেছে। যার ফলে আমাদের দেশের জন্য রোমানিয়া ওয়ার্ক পারমিট পাওয়াটা আগের তুলনায় আরো কঠিন হয়ে পড়েছে। তবে আমরা সকলেই জানি যে, রোমানিয়া তে দক্ষ জনবলের যথেষ্ট চাহিদা আছে। আর আপনার মধ্যে যদি দক্ষতা থাকে। তাহলে আপনি খুব সহজেই রোমানিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিতে পারবেন। 

 

তবে সেজন্য আপনাকে রোমানিয়া ভিসা এজেন্সিতে যোগাযোগ করতে হবে। তারপর আপনার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ভিসা ফি প্রদান করে ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। যদি আপনার আবেদন গ্রহনযোগ্য হয়। তাহলে আপনি রোমানিয়া ভিসা পাবেন।

রোমানিয়া ভিসা আবেদন ফরম কিভাবে পাবো?

যখন আপনি ভিসার জন্য আবেদন করবেন। তখন অবশ্যই আপনাকে নির্দিষ্ট একটি ফরম সংগ্রহ করতে হবে। তারপর উক্ত ফরম এর মধ্যে আপনার যাবতীয় তথ্য গুলো দিতে হবে। তো আমরা অনেকেই বুঝতে পারিনা যে, রোমানিয়া ভিসা আবেদন ফরম কোথায় পাবো। 

 

আর সে কারণে এবার আমি আপনাকে কিছু লিংক শেয়ার করবো। যেখান থেকে আপনি অনলাইনে রোমানিয়া ভিসা আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন। আর উক্ত লিংক গুলো নিচে দেওয়া হলো। যেমন, 

See also  ডিজিটাল মার্কেটিং এর বর্তমান অবস্থা কেমন?

 

  1. কূটনৈতিক এবং পরিষেবা ভিসার জন্য আবেদনপত্রঃ Click Here.

  2. স্বল্পকালীন ভিসার জন্য আবেদনপত্রঃ Click Here.

  3. দীর্ঘস্থায়ী ভিসার জন্য আবেদনপত্রঃ Click Here.

 

যদিওবা আপনি দুতাবাস থেকেও উক্ত ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন। তবে বিভিন্ন প্রয়োজনে যদি আপনার রোমানিয়া ভিসা আবেদন ফরম এর দরকার হয়। তাহলে আপনি উপরের লিংক থেকে সংগ্রহ করে নিতে পারবেন। 

বাংলাদেশ থেকে রোমানিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা পাওয়া যায়?

উত্তরঃ হ্যাঁ! বর্তমান সময়ে আমাদের বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য রোমানিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা পাওয়া যায়। 

রোমানিয়া ভিসা প্রসেসিং এজেন্সি কোথায়?

উত্তরঃ বর্তমান সময়ে আমাদের বাংলাদেশে রোমানিয়া দুতাবাস নেই। আর সেজন্য আমি কোনো এজেন্সির নাম সাজেষ্ট করবো না। তবে আপনি ভারতের দিল্লীর রোমানিয়া দুতাবাস থেকে রোমানিয়া ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। 

রোমানিয়া গার্মেন্টস ভিসা কত টাকা লাগে?

উত্তরঃ আপনি যদি আমাদের বাংলাদেশ থেকে রোমানিয়া গার্মেন্টস ভিসা পেতে চান। তাহলে আপনার ০৪ লাখ থেকে ০৬ লাখ টাকা খরচ করার প্রয়োজন হবে। আবার সময় ও স্থানভেদে এই অর্থের পরিমান কম বা বেশি হতে পারে। 

রোমানিয়া বেসিক বেতন কত টাকা?

উত্তরঃ বর্তমান সময়ে রোমানিয়ার বেসিক বেতন এর পরিমান হলো, ৫০,০০০ থেকে ৮০ হাজার টাকা। তবে আপনার বেসিক বেতন এর পরিমান কত হবে। সেটা নির্ভর করবে আপনার কাজ, দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার উপর। 

রোমানিয়া জব সার্কুলার কোথায় পাবো?

উত্তরঃ অনলাইনে এমন অনেক ওয়েবসাইট আছে। যে ওয়েবসাইট গুলোতে রোমানিয়া জব সার্কুলার এর সন্ধান পাওয়া যায়। আর সেই ওয়েবসাইট গুলো হলো, 

 

  1. Romania Job Circular-1,

  2. Romania Job Circular -2,

  3. Romania Job Circular -3,

 

উপরের ওয়েবসাইট গুলো থেকে রোমানিয়া থেকে বিভিন্ন কোম্পানির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কে জানতে পারবেন। তবে সেই নিয়োগে আবেদন করার পূর্বে অবশ্যই যাচাই বাচাই করে তারপর আবেদন করবেন। 

রোমানিয়া ভিসা আপডেট নিয়ে আমাদের কিছুকথা

আপনারা যারা রোমানিয়া ভিসা আপডেট নিউজ সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। তাদের জন্য আজকের এই আর্টিকেলটি অনেক হেল্পফুল হবে। কারণ রোমনিয়া ভিসা সম্পর্কিত যে সকল প্রয়োজনীয় তথ্য শেয়ার করার দরকার ছিলো। তার সবগুলো নিয়ে আজকে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। 

 

তো যদি আপনি বিভিন্ন দেশের পাসপোর্ট কিংবা ভিসা সম্পর্কে অজানা তথ্য জানতে চান। তাহলে আমাদের সাথে থাকবেন। ধন্যবাদ, এতক্ষন ধরে আমাদের সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *