Ielts করে কোন কোন দেশে যাওয়া যায়?

আমরা সকলেই জানি যে, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে যাওয়ার জন্য Ielts করার দরকার হয়। কিন্তু যখন আপনি Ielts শেষ করবেন। 

 

তখন আপনি পৃথিবীর কোন কোন দেশ গুলোতে যেতে পারবেন। সে সম্পর্কে অনেকেই সঠিক তথ্য জানতে চায়। 

 

আর আজকের আলোচনা তে আমি আপনাকে জানাবো, Ielts করে কোন কোন দেশে যাওয়া যায়।

 

Ielts করে কোন কোন দেশে যাওয়া যায়?

Ielts করে কোন কোন দেশে যাওয়া যায়?

সহজ কথায় বলতে গেলে, Ielts হলো একটি আন্তর্জাতিক মাধ্যম। যাকে বর্তমান সময়ে বিশ্বের মোট ১৪০ টিরও বেশি দেশ থেকে সমর্থন করা হয়। 

 

আর এই Ielts এর মাধ্যমে একজন ব্যক্তির ইংরেজি ভাষার দক্ষতা কে যাচাই করা হয়। আর বর্তমান বিশ্বে বিভিন্ন দেশে Ielts এর মোট ১০ হাজারেও বেশি প্রতিষ্ঠান আছে। 

 

তো যারা আসলে জানতে চান যে, Ielts করে কোন কোন দেশে যাওয়া যায়। তাদের বলবো যে, বর্তমান সময়ে পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই Ielts করে যাওয়া সম্ভব। 

তবে এবার আমি আপনাকে একটি তালিকা প্রদান করবো। যে তালিকায় আপনি সেই দেশ গুলোর নাম দেখতে পারবেন। যে দেশ গুলোতে আইএলটিএস করে যাওয়া যায়। যেমন,

  1. অস্ট্রিয়া
  2. অস্ট্রেলিয়া
  3. বাহাম
  4. বেলজিয়াম
  5. ব্রাজিল
  6. কানাডা
  7. চীন
  8. কোস্টা রিকা
  9. ক্রোয়েশিয়া
  10. চেক প্রজাতন্ত্র
  11. ডেনমার্ক
  12. এল সালভাদোর
  13. ফিনল্যান্ড
  14. ফ্রান্স
  15. জার্মানি
  16. গ্রীস
  17. গ্যারাম্বিয়া
  18. হংকং
  19. হাঙ্গেরি
  20. ভারত
  21. আয়ারল্যান্ড
  22. ইতালি
  23. জাপান
  24. কেনিয়
  25. কুয়েত
  26. লাটভিয়া
  27. লিথুয়ানিয়া
  28. মালয়েশিয়া
  29. মেক্সিকো
  30. নেদারল্যান্ডস
  31. নিউজিল্যান্ড
  32. নরওয়ে
  33. ফিলিপাইন
  34. পোল্যান্ড
  35. পর্তুগাল
  36. কোরিয়া
  37. সৌদি আরব
  38. সিঙ্গাপুর
  39. স্লোভাকিয়া
  40. স্লোভেনিয়া
  41. দক্ষিণ আফ্রিকা
  42. স্পেন
  43. সুইডেন
  44. সুইজারল্যান্ড
  45. থাইল্যান্ড
  46. তুরস্ক
  47. যুক্তরাজ্য
  48. যুক্তরাষ্ট্র
  49. ভিয়েতনাম
See also  ঈদুল আজহায় প্রিয়জন কে কি উপহার দিবেন?

 

উপরের তালিকা তে আপনি যে সকল দেশের নাম দেখতে পাচ্ছেন। সেই দেশ গুলো তে আপনি আইএলটিএস করে যেতে পারবেন।

তবে বলে রাখা ভালো যে, উপরের এই তালিকা টি সম্পূর্ণ নয়। কেননা, এই তালিকার বাইরে আরো এমন অনেক দেশ আছে।

যে দেশ গুলোতে Ielts করে যাওয়া যায়। আশা করি, বিষয়টি পরিস্কার ভাবে বুঝতে পেরেছেন।

আইইএলটিএস মোট স্কোর কত?

আমরা সকলেই জানি যে, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে যাওয়ার জন্য ভিন্ন ভিন্ন Ielts স্কোর এর প্রয়োজন হয়। কিন্তুু আপনি কি জানেন, আইইএলটিএস মোট স্কোর কত?

 

তো Ielts এর মোট স্কোর এর পরিমান হলো, ৯ (নয়)। 

 

কিন্তুু যখন আপনি Ielts কোর্স করবেন। তখন আপনার মোট স্কোরের মধ্যে পূর্ণ সংখ্যার পাশাপাশি দশমিক ব্যবহার করা হবে। 

 

যেমন, ৫.৭ স্কোর, ৫.৩ স্কোর, ৬.২ স্কোর ইত্যাদি। মূলত এভাবে Ielts স্কোর প্রদান করা হয়ে থাকে। 

কোন দেশ সামগ্রিকভাবে 5.5 ব্যান্ড গ্রহণ করে?

আমরা সকলেই জানি যে, বিভিন্ন দেশ বিভিন্ন IELTS স্কোর গ্রহন করে। তবে এমন অনেক দেশ আছে, যারা ৫.৫ ব্যান্ড থাকা IELTS স্কোর কে গ্রহন করে। 

 

আর সামগ্রিক ভাবে 5.5 ব্যান্ড গ্রহণ করে, এমন অনেক দেশের তালিকা নিচে দেওয়া হলো। যেমন, 

 

  1. কানাডা

  2. অস্ট্রেলিয়া

  3. নিউজিল্যান্ড

  4. যুক্তরাজ্য

  5. আয়ারল্যান্ড

  6. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

  7. সিঙ্গাপুর

  8. মালয়েশিয়া

  9. থাইল্যান্ড

  10. ভিয়েতনাম

 

তবে দেশের ক্ষেত্রে IELTS স্কোর এর পরিমান যেকোনো সময় পরিবর্তন হতে পারে। তাই আপনি যে দেশে যেতে চান। আপনাকে সেই দেশের সরকারি ওয়েবসাইট থেকে সঠিক তথ্য জেনে নিতে হবে। 

Ielts এ ৮ ব্যান্ড পাওয়ার উপায় গুলো কি কি?

আপনার মতো এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত Ielts এ ৮ ব্যান্ড পাওয়ার উপায় গুলো সম্পর্কে জানতে চান। আর আপনিও যদি তাদের মধ্যে একজন হয়ে থাকেন। তাহলে শুনুন…

See also  Ielts ছাড়া ইউরোপের কোন কোন দেশে যাওয়া যায়

 

এমন অনেক উপায় আছে। যে গুলো ফলো করার মাধ্যমে আপনি Ielts এ ৮ ব্যান্ড অর্জন করতে পারবেন। আর সেই উপায় গুলো হলো, 

 

  1. IELTS পরীক্ষার প্রস্তুতি মূলক বই পড়ুন,

  2. পরীক্ষায় প্রস্তুতির জন্য কোর্স নিন,

  3. ইংরেজি ভাষার সংবাদ, গান, পডকাস্ট শুনুন।

  4. ইংরেজি ভাষার বই পড়া,

  5. সেই সিনেমা এবং টিভি শো দেখুন, যেগুলো ইংরেজি ভাষায়,

  6. প্রয়োজনে ইংরেজি ভাষাভাষী মানুষের সাথে কথা বলুন,

 

তো যদি আপনি উপরে দেখানো পদ্ধতি গুলো নিয়মিত অনুশীলন করেন। তাহলে আপনি খুব সহজেই Ielts এ ৮ ব্যন্ড অর্জন করতে পারবেন। 

Ielts পাস স্কোর কত?

আমরা অনেকেই মনে করি যে, আইইএলটিএস এর মধ্যে হয়তবা পাস ও ফেল স্কোর আছে। তো যারা এমনটা ভাবেন, তাদের ধারনা সম্পূর্ণ ভুল। 

 

কেননা, IELTS পরীক্ষার জন্য কোন পাস বা ফেল স্কোর নেই। এর কারণ হলো, IELTS পরীক্ষাতে ব্যান্ড স্কোরিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়।  

 

যেখানে প্রতিটি অংশে মোট 09 টি ব্যান্ড রয়েছে। আর আপনি যখন IELTS পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন। তখন আপনাকে প্রতিটি অংশে একটি স্কোর দেওয়া হবে। 

 

সবশেষে আপনার মোট স্কোর সেই চার (০৪) টি অংশের স্কোর এর যোগফল হবে।

আপনার জন্য আমাদের কিছুকথা

যেসব পাঠকরা জানতে চেয়েছেন যে, Ielts করে কোন কোন দেশে যাওয়া যায়। আশা করি, তারা তাদের প্রশ্নের সঠিক উত্তর জানতে পেরেছেন। 

 

তো আপনি যদি পাসপোর্ট, ভিসা সম্পর্কিত এই ধরনের অজানা তথ্য সহজ ভাষায় জানতে চান। তাহলে আমাদের সাথে থাকবেন। 

 

ধন্যবাদ, আমাদের সাথে থাকুন। 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *