চীনের প্রদেশ কয়টি ও কি কি ?

আমরা অনেকেই চীনের প্রদেশ কয়টি সে সম্পর্কে জানতে চাই। তো বর্তমান সময়ে চীনের মধ্য মোট ২৩ টি প্রদেশ আছে।

তবে চীন শুধুমাত্র ২২ টি প্রদেশকে সরাসরি ভাবে নিয়ন্ত্রন করে। কিন্তুু একটি প্রদেশ আছে, যে প্রদেশকে চীন নিজের অধীনে বলে দাবী করলেও, তারা সরাসরি ভাবে উক্ত প্রদেশ কে নিয়ন্ত্রন করেনা। আর সেই প্রদেশ এর নাম হলো, তাইওয়ান।

তো আজকের আর্টিকেল থেকে আমরা চীনের প্রদেশ কয়টি ও সেই প্রদেশ গুলোর রাজধানী গুলো জানার চেষ্টা করবো।

চীনের প্রদেশ কয়টি ও কি কি ?
উপরের আলোচনা থেকে আমরা জানলাম যে, বর্তমান সময়ে চীনে মোট ২৩ ‍টি প্রদেশ আছে। আর উক্ত প্রদেশ গুলোর নিজস্ব রাজধানী আছে। তাই এবার আমি আপনাকে চীনের সকল প্রদেশের নাম গুলো বলবো। আর সেই নামের তারিকা নিচে শেয়ার করা হলো। যেমন,
  1. আনহুই
  2. ফুজিয়ান
  3. হেনান
  4. হেইলংজিয়াং
  5. হুনান
  6. হেবেই
  7. হ্যাংজু
  8. হাইনান
  9. হুনান
  10. জিয়াংসু
  11. ঝেজিয়াং
  12. ঝেজিয়াং
  13. লুয়ানশি
  14. ন্যিংসিয়া
  15. শেচুয়ান
  16. সিচুয়ান
  17. সাংহাই
  18. তিব্বত
  19. ইউনান
উপরের তালিকায় আপনি মোট ১৯ টি চীনের প্রদেশ এর নাম দেখতে পাচ্ছেন। তবে এগুলো ছাড়াও চীনের মধ্যে মোট ০৪ টি কেন্দ্রশাসিত পৌরসভা আছে। যে গুলোর নাম নিচে উল্লেখ করা হলো। যেমন,
  1. বেইজিং,
  2. থিয়েনচিন,
  3. সাংহাই এবং
  4. ছুংছিং
মূলত উপরে উল্লেখিত স্থান গুলো হলো চীনের কেন্দ্রশাসিত পৌরসভার নাম। আর এই সবগুলো মিলে চীনের মোট প্রদেশের সংখ্যা হলো ২৩ টি।

চীনের সবচেয়ে বড় প্রদেশ কোনটি?

এতক্ষনের আলোচনা থেকে আমরা চীনের বিভিন্ন প্রদেশের নাম সম্পর্কে জানতে পারলাম। তো এবার অনেকের মনে প্রশ্ন জেগে থাকবে যে, চীনের সবচেয়ে বড় প্রদেশের নাম কি। আর বর্তমান সময়ে চীনের সবচেয়ে বড় প্রদেশের নাম হলো, ছিংহাই। যার মোট আয়তনের পরিমান হলো প্রায় ৭,২০,০০০ বর্গকিমি।
তবে বর্তমান সময়ে এই প্রদেশ এর নাম ছিংহাই হিসেবে চিনলেও। অতীত সময়ে এই প্রদেশ কে কোকোনুর নামে ডাকা হতো। আর এটি চীনের উত্তর-পশ্চিম অংশে অবস্থিত। যার মোট আয়তন অনুযায়ী ছিংহাই চীনের সবচেয়ে বড় প্রদেশ এর স্থান নিতে পেরেছে।

চীনের প্রধান নদীর নাম কি?

আমরা সবাই জানি যে, চীন হলো আয়তনের দিক থেকে বৃহৎ একটি দেশ। আর এই দেশের মধ্যে অসংখ্য নদী থাকবে এটাই স্বাভাবিক। তবে বর্তমান সময়ে চীনের মধ্যে ছাংচিয়াং কে প্রধান নদী হিসেবে ধরা হয়। কেননা, এই নদীর মোট দৈর্ঘ্য হলো প্রায় ৬,৩০০ কিলোমিটার।
আর এই ছাংচিয়াং নদীটি মূলত আফ্রিকার নীল নদ আর দক্ষিণ আমেরিকার আমাজান নদীর পরে তৃতীয় স্থান দখল করতে পেরেছে। বলে রাখা ভালো যে, এই নদীটি চীনের অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ইতিহাস এর প্রতি যথেস্ট ভূমিকা রাখে। কারণ এই নদীটি হলো চীনের অন্যতম যোগাযোগ ও পরিবহন মাধ্যম।

কিংহাই কি তিব্বতের অংশ?

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা আসলে জানতে চান যে, কিংহাই কি তিব্বতের অংশ কি না। তো যারা আসলে এই বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চান তাদের বলবোব যে, কিংহাই তিব্বতের একটি অংশ।
কারণ, কিংহাই হলো চীনের উত্তর-পশ্চিম একটি প্রদেশ। যে প্রদেশটি মঙ্গোলিয়া প্রজাতন্ত্রের দক্ষিণে, জিনজিয়াংয়ের পূর্বে এবং তিব্বতের উত্তরে অবস্থিত। আর বর্তমান সময়ে চীনের অন্যান্য প্রদেশ গুলোর তুলনায় কিংহাইয়ে অনেক কম মানুষ বসবাস করে। যার কারণে এই প্রদেশে ঘনবসতি নেই বললেই চলে।

আপনার জন্য আমাদের কিছুকথা

প্রিয় পাঠক, আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আর্টিকেল পাবলিশ করি। আর সেই ধারাবাহিকতায় আজকে আমি আপনাকে চীনের প্রদেশ কয়টি সে সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানিয়ে দিয়েছি।
তো যদি আপনি এই ধরনের অজানা বিষয় গুলো বিনামূল্যে জানতে চান। তাহলে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করবেন। আর এতক্ষন ধরে আমাদের সাথে থাকার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন, ‍সুস্থ থাকবেন।
See also  কানাডা কোন শিল্পের জন্য বিখ্যাত?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *